ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ৮ মিনিট আগে
শিরোনাম

আগাম শীতকালীন সবজির ভালো দামে খুশি কৃষক

  কুমিল্লা প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৪ নভেম্বর ২০২২, ১৩:২২

আগাম শীতকালীন সবজির ভালো দামে খুশি কৃষক
চাপানগর এলাকায় ফুলকপির খেত। ছবি: প্রতিনিধি
কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লার দেবীদ্বারের বিস্তীর্ণ কৃষি জমিতে শাক-সবজি চাষের ধুম পড়েছে। আগাম শীতকালীন সবজির ভালো দামে কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন খেতে নানা সবজির সমারোহ। সিম, ফুলকপিসহ হরেক রকম শীতকালীন সবজিতে হেসে উঠেছে ফসলের মাঠ। মৌসুমের শুরুতে অতিবৃষ্টি ও কুয়াশার কারণে শীতের আগাম শাকসবজির আশাব্যঞ্জক ফলন না পেলেও এখন সবধরনের সবজির উৎপাদন বাড়ছে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা। বেশি সবজি চাষ হয় দেবীদ্বারের চাপানগর, বিজলী বাজার, ছোট আলমপুর, মোহনপুর ও ফুলতলী এলাকায়।

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় উৎপাদন বেড়েছে ফুলকপি, বাঁধাকপি, লালশাক, লাউ, মুলা, সিম, ঢেড়শ, কুমড়া, বেগুনসহ অন্য শীতকালীন সবজির। শীতের শুরুতে পাইকারি বাজারগুলোতে তেমন সরবরাহ না থাকলেও এখন বাড়ছে সবধরনের সবজির আমদানি। বাজারে বিক্রি করতে নিয়ে আসছেন কৃষকরা।

কৃষক শরিফ খান বলেন, এ বছর এক বিঘা জমিতে ফুলকপি চাষ করেছি। ফুলকপির উৎপাদন ভালো হয়েছে। বাজারে ফুলকপির দামও ভালো পাওয়া যাচ্ছে। ইতোমধ্যে জমির অর্ধেক ফুলকপি বিক্রি করে উৎপাদন খরচ তুলে ফেলেছি। যার ফলে আমার লাভ ভালোই হবে।

দেবীদ্বার উপজেলার দক্ষিণ ভিংলা বাড়ির কৃষক সবুজ মিয়া বলেন, এবার মৌসুমের শুরুতে কুয়াশা ও অতিবৃষ্টির কারণে শীতকালীন সবজির ফলন বেশি হয়নি। তবে ধীরে ধীরে আবহাওয়া অনূকূলে আসায় শীতকালীন সবজিতে হেসে উঠেছে আমাদের ফসলের মাঠ। সব চাষির উৎপাদন ভালো হয়েছে। বাজারে চাহিদার তুলনায় সবজির সমারোহ বেশি। যে কারণে সব সবজির দাম কম। দাম কম হলেও এবার কৃষকরা লাভবান হবেন।

দেবিদ্বার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবদুর রউফ জানান, ‘আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর দেবিদ্বারে আলুর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি আশা করছি৷ আর অন্যান্য শীতকালীন সবজিরও ভাল ফলন হচ্ছে৷ আমরা কৃষকদের পরামর্শের পাশাপাশি প্রয়োজন অনুপাতে কৃষি উপকরণও দিচ্ছি।’

বাংলাদেশ জার্নাল/এমপি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত