ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ৯ মিনিট আগে
শিরোনাম

প্রবাসীদের ব্যাংক একাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক

প্রবাসীদের ব্যাংক একাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক
ফাইল ছবি
অনলাইন ডেস্ক

চাকরি নিয়ে বিদেশ যেতে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে এই একাউন্ট দেশের যেকোনও ব্যাংকে খোলা যাবে বলে জানিয়েছে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি)।

কিছুদিন ধরে নির্দিষ্ট কিছু ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট না খুললে ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স পাওয়া যাবে না, এমন তথ্যে বিভ্রান্ত হচ্ছেন প্রবাসে যেতে চাওয়া চাকরী প্রার্থীরা।

রবিবার বিকালে বিষয়টি গণমাধ্যমে খোলাসা করেছেন জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক শহীদুল আলম।

সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে বিষয়টি ব্যাপক প্রচার পায়। একটি প্রচারণায় বলা হয়, বিদেশ যেতে হলে রাষ্ট্রায়ত্ত চারটি ব্যাংকে (সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক) অ্যাকাউন্ট খোলা বাধ্যতামূলক। যদি কারও ওইসব সরকারি ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট না থাকে, তাহলে ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স পাওয়া যাবে না।’

এ বিষয়ে বিএমইটি মহাপরিচালক শহীদুল আলম জানান, সোনালী ব্যাংকের সঙ্গে গেটওয়ে করা হয়েছে। ওখানে যেকোনও ব্যাংকের মাধ্যমে ফি দেওয়া যাবে। এতে আমাদের পক্ষ থেকে কোনও বাধা নেই।

তবে বিদেশ গেলে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক করেছে সরকার, যাতে কর্মীরা বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠাতে পারেন। অ্যাকাউন্ট না থাকলে বিদেশে যাওয়া যাবে না। এখানে সরকারি কিংবা বেসরকারি ব্যাংকের কোনও বাধ্যবাধকতা রাখা হয়নি।শ যেতে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক করেছে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি)। তবে এই একাউন্ট দেশের যেকোন ব্যাংকে খোলা যাবে। কিছুদিন হলো নির্দিষ্ট কিছু ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট না থাকলে ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স পাওয়া যাবে না, এমন তথ্যে বিভ্রান্ত হচ্ছিলেন প্রবাসগামী চাকরী প্রার্থীরা। ২০ নভেম্বর বিকালে গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক শহীদুল আলম।

সম্প্রতি বিষয়টি সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হয়। একবার বলা হয়েছিলো, বিদেশ যেতে হলে রাষ্ট্রায়ত্ত চারটি ব্যাংকে (সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক) অ্যাকাউন্ট খোলা বাধ্যতামূলক। যদি কারও ওইসব সরকারি ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট না থাকে, তাহলে ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স পাওয়া যাবে না।

বিএমইটি মহাপরিচালক শহীদুল আলম জানান, সোনালী ব্যাংকের সঙ্গে গেটওয়ে করা হয়েছে। ওখানে যেকোনও ব্যাংকের মাধ্যমে ফি দেওয়া যাবে। তবে বিদেশ গেলে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক করেছে সরকার, যাতে কর্মীরা বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠাতে পারেন। এখানে কোন ব্যাংকে নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়নি।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত